চরাঞ্চলে সঠিকভাবে সরকারি সেবা পৌঁছে নাঃ সিরাজগঞ্জে সংবাদ সম্মেলনে চরাঞ্চলবাসী

চরাঞ্চলে সঠিকভাবে সরকারি সেবা পৌঁছে নাঃ সিরাজগঞ্জে সংবাদ সম্মেলনে চরাঞ্চলবাসী

মোঃ ছাম্মি আহমেদ আজমীর 



দুর্গম চরাঞ্চলের মানুষের দোরগোড়ায় সঠিকভাবে সরকারি সেবাসমূহ পৌঁছে না বলে অভিযোগ করেছেন এসব এলাকার সমাজ ভিত্তিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা। সরকারি ত্রাণ সহায়তা, কৃষি প্রণোদনা, মান সম্মত শিক্ষাসহ সকল সেবা থেকেই নানাভাবে বঞ্চিত হচ্ছে চরের হতদরিদ্র মানুষেরা। 

বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সয়দাবাদ পূর্ণবাসন এলাকায় মানবমুক্তি সংস্থার হলরুমে করোনা ও বন্যা মোকাবেলায় ত্রাণ কর্মসূচি এবং কৃষি প্রণোদনায় সরকারি পরিসেবার কার্যকারিতা বিষয়ক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করা হয়। অক্সফাম ইন বাংলাদেশ ও সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের সহযোগীতায় মানবমুক্তি সংস্থা এ সংবাদ সম্মেলনে আয়োজন করে। 

সংবাদ সম্মেলনে চরাঞ্চলের প্রতিনিধিরা বলেন, ত্রাণের ১০ কেজি চালের জন্য নৌকা ভাড়া ৬০/১০০ টাকা নৌকা ভাড়া দিয়ে নদীর ওপারে যেতে হয়। সারাদিন বিড়ম্বনা নিয়ে বসে থাকতে হয়। তারপর মেলে ত্রাণের চাল। কৃষি প্রণোদনার জন্য দেয়া বীজ, কীটনাশক প্রকৃত কৃষকের হাতে পৌঁছায় না। যাদের জমি নেই তারাই সেগুলো পায় এবং বিক্রি করে দেয়। কৃষিঋণ চলে যাচ্ছে অকৃষকের হাতে। স্কুলগুলোতেও শিক্ষার মান ভাল নয়। শিক্ষকরা সঠিক সময়ে ক্লাসে আসেন না এবং এক দেড়ঘন্টা অবস্থান করেই যাবার প্রস্তুতি নেন। বক্তারা সরকারি সকল সহায়তা চরের মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার দাবী জানান।

এ সময় বক্তব্য রাখেন, ঘোড়জান ইউনিয়ন ইয়থ গ্রুপের সভাপতি শহিদুল ইসলাম, সিরাজুল ইসলাম, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক আবু তালেব, চর ধীতপুর সিবিও এর সাধারণ সম্পাদক মামুন রেজা, সিরাজুল ইসলাম, সদর উপজেলার সয়দাবাদ এবং চৌহালী উপজেলার ঘোড়জান ও স্থল ইউনিয়নের সমাজ ভিত্তিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা। 

এসডিজি বাস্তবায়ন সিরাজগঞ্জ জেলা নেটওয়ার্কের সভাপতি রহিমা বেগমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সভাপতি হেলাল আহমেদ, সহ-সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মজিদ সরকার, সিনিয়র সাংবাদিক আব্দুল কুদ্দুস, বাবু ইসলাম, সাংবাদিক স্বপন মির্জা ও মানবমুক্তি সংস্থার রি-কল প্রজেক্টের প্রকল্প ব্যবস্থাপক শামছুজ্জামান। সঞ্চালনা করেন মানবমুক্তি সংস্থার রি-কল প্রজেক্টের প্রকল্প সমন্বয়ক গুরদাস বিশ্বাস।